কাশ্মীরে জুম্মার নামাজের পরেই বিক্ষোভ, সংঘর্ষ

কাশ্মীরে জুম্মার নামাজের পরেই বিক্ষোভ, সংঘর্ষ

অনলাইন ডেস্ক:ভারত শাসিত কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরের সৌরা এলাকায় শুক্রবারের নামাজের পরে একটি বিক্ষোভ চলাকালীন হঠাৎই তা হিংসাত্মক হয়ে ওঠে। এতে বিক্ষোভকারীরা পাথর ছোঁড়া শুরু করলে নিরাপত্তা বাহিনী জবাবে ছররা গুলি আর কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটিয়েছে। খবর বিবিসি বাংলার।

বিবিসির একজন সংবাদদাতা জানিয়েছে, তিনি অন্তত দুজনকে আহত হতে দেখেছেন। কিন্তু কাশ্মীর প্রশাসনের পক্ষ থেকে আহতের সংখ্যা এখনও পর্যন্ত জানানো হয় নি।

৩৫এ আর ৩৭০ ধারা বিলোপের পরে এই সৌরা এলাকাতেই প্রথম বড়সড় বিক্ষোভ হয়েছিল দুসপ্তাহ আগে শুক্রবারের নামাজের পরেই। গত শুক্রবারও নামাজের পরে একটা শান্তিপূর্ণ মিছিল হয়েছিল। কোনও গন্ডগোল হয় নি।

বিবিসির সংবাদদাতা জানান, শুক্রবারের নামাজ শুরু হওয়ার কিছুটা আগেই, বেলা একটার দিকে সেখানে পৌঁছান তিনি। তাঁর সঙ্গে ছিলেন সহকর্মী ক্যামেরাপার্সন নেহা শর্মা।

তিনি জানান, তখন মাজারে মানুষ জড়ো হওয়া শুরু হয়েছিল। নারী আর পুরুষ – নামাজ পড়তে আসেন এখানে।

প্রথম নামাজের পরে স্বাধীনতাপন্থী কিছু স্লোগান ওঠে। তারপরে একটা শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ শুরু হয়। সেখানে তখন বেশ কয়েক হাজার মানুষ হাজির ছিলেন। গত সপ্তাহের মতোই আজকের বিক্ষোভ মিছিলটাও নানা অলি গলি ঘুরে শেষ হয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎই একটা জায়গায় গলির ভেতরে নিরাপত্তা বাহিনী ঢুকতে চেষ্টা করে। তখনই অশান্তি শুরু হয়।

সৌরা এলাকায় নিরাপত্তাবাহিনী যাতে ভেতরে ঢুকতে না পারে, সেজন্য বড়রাস্তা থেকে যত গলি ভেতরে ঢুকেছে, সেই সব গলিগুলো খুঁড়ে রেখে দিয়েছেন, কোথাও বড় বড় ব্যারিকেড রেখে দিয়েছেন ওখানকার বাসিন্দারা।

পুলিশের গাড়ি ভেতরে ঢুকতে পারে না ওখানে। ভেতরে ঢুকতে গেলে পুলিশকে হেঁটেই ঢুকতে হবে। এরকমই একটা গলি দিয়ে ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করে একদল নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য।

আর সৌরাতে একটা ব্যবস্থা আছে, যখনই পুলিশের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষ বাঁধে, তখনই সব বাড়ি থেকে টিন বাজানো শুরু হয়ে যায়। আর সব মানুষ বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে সংঘর্ষে নেমে পড়ে। আজও (শুক্রবার) এমন ঘটনা ঘটেছে বলে বিবিসির এই সংবাদদাতা জানান।

তিনি জানান, পুলিশ আর কেন্দ্রীয় বাহিনীর দলটা যেই ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করল, তখনই পাথর ছোঁড়া শুরু হল একদিকে, আর অন্যদিকে সব বাড়ি থেকে টিন বাজানো হতে লাগল। সবাই বাড়ি থেকে বেরিয়ে ওই গলিটার দিকে দৌড়তে লাগল।

একদিক থেকে পাথর ছোঁড়া হচ্ছে, অন্যদিক থেকে ছররা গুলি, কাঁদানে গ্যাস আর গোলমরিচের গোলা ছোঁড়া হচ্ছিল।

আমি দুজনকে ছররা গুলিতে আহত হতে দেখেছি। একজনের চোখ থেকে রক্ত বেরচ্ছিল, আরেকজনের ঘাড়ে আঘাত লেগেছিল ছররা গুলির।

আজকের সংঘর্ষটা প্রায় ঘন্টা দুয়েক চলেছিল, বেলা চারটে পর্যন্ত।

এখনও পর্যন্ত প্রশাসন নির্দিষ্ট করে আহতদের সংখ্যা জানায় নি। অন্যদিন সন্ধ্যের সময়ে একটা করে সংবাদ বুলেটিন প্রকাশ করে জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসন। কিন্তু গতকাল আর আজ সেটা প্রকাশিত হয় নি।

দুদিন ধরেই একটা পোস্টার লাগানো হয়েছিল শহরের নানা জায়গায় যে শুক্রবারের নামাজের পরে বিক্ষোভ হবে। সবাইকে আহ্বান জানানো হয়েছিল শ্রীনগরে জাতিসংঘের কার্যালয়ের দিকে মিছিল করে যাওয়ার জন্য। হুরিয়ত কনফারেন্সের নামে ওই পোস্টার পড়েছিল।

কিন্তু জাতিসংঘের কার্যালয়ের দিকে যাওয়ার একটি বাদে সব রাস্তাই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল সকাল থেকেই। সেখানে ব্যাপক নিরাপত্তার কড়াকড়ি করা হয়েছিল। সেদিকে কোনও মিছিল যায় নি অবশ্য শেষ অবধি।

তবে ওই পোস্টার যদি নাও পড়ত, তাহলেও এই সৌরা এলাকায় বিক্ষোভ হতই। এই অঞ্চলে শুক্রবারের নামাজের পরে বিক্ষোভ নিয়মিত ঘটনা।

বিবিসির এই সংবাদ দাতা আরও জানান, আজ যখন গোলমরিচের গোলা ছোঁড়া হয় নিরাপত্তাবাহিনীকে লক্ষ্য করে, তখন সাংবাদিকরাও তার হাত থেকে রেহাই পাই নি। ওই গ্যাস যখন নাকে ঢোকে তখন ক্রমাগত কাশি হতে থাকে। সাধারণত আমরা নিরাপত্তাবাহিনীর পেছন দিক থেকে ছবি তুলি। সেটাকেই সাংবাদিকদের জন্য নিরাপদ এলাকা বলে ধরা হয়। কিন্তু ৩৭০ ধারা বিলোপের পর থেকে ওইদিক থেকে আমাদের ছবি তুলতে দেওয়া হচ্ছে না। তাই আমরা বাধ্য হচ্ছি বিক্ষোভকারীদের পিছন দিক থেকে ছবি তুলতে।

সৌরাতে অশান্তি হলেও শহরের অন্যান্য অঞ্চলে কোনও বিক্ষোভ বা অশান্তির খবর নেই।

বিবিসির সহকর্মী রিয়াজ মাসরুর হজরতবাল দরগা সহ শহরের নানা বড় মসজিদ ঘুরে জানান শুক্রবার তৃতীয় সপ্তাহের মতো শুক্রবারের নামাজের জন্য বড় জমায়েতের অনুমতি দিচ্ছে না।

সোপিয়ান, কুলগাম, বারামুল্লা, কুপওয়াড়া বা অনন্তনাগ এলাকাতেও একই ধরণের বিধিনিষেধ চালু রয়েছে। মাইক বাজানোরও অনুমতি নেই কোনও মসজিদে।

বড় মসজিদগুলিতে শুক্রবারের নামাজের জমায়েতের অনুমতি না থাকলেও এলাকার ছোট ছোট মসজিদগুলিতে নামাজ পড়তে কোনও বাধা নেই।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

স্টাফ রিপোর্টার: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ বড়ই আচার খেয়ে রোজিনা আক্তার (১০) নামে এক স্কুল ছাত্রী নিহত হয়েছে সোমবার বিকালে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাদীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। জানা যায়, সোমবার সকালে রোজিনা আক্তার তার বাড়ির পাশ্ববর্তী একটি দোকান থেকে ৫ টাকা দিয়ে আচার ক্রয় করে প্রাণ করার সাথে সাথে তার বমি হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করলে চিকিৎসাদীন অবস্থায় বিকালে তার মৃত্যু হয় নিহত রোজিনা উপজেলার নিজগাঁও গ্রামে ভাঙ্গারি ব্যবসায়ি দেলোয়ার হুসেনের কন্যা ও স্থানিয় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী

হবিগঞ্জ বড়ই আচার খেয়ে এক স্কুল ছাত্রী নিহত

অনলাইন ডেস্ক:পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অপরাধ নির্মূল ও সমসাময়িক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, অপরাধের ধরণ প্রতিনিয়ত পরিবর্তিত হচ্ছে।

গতানুগতিক অপরাধের পাশাপাশি সাইবার ক্রাইম, মানিলন্ডারিং, মানবপাচার ইত্যাদি বৈশ্বিক অপরাধ সংগঠিত হচ্ছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের মতো অশুভ সামাজিক ব্যাধি। জঙ্গিবাদ দমনে বাংলাদেশ পুলিশের অব্যাহত সাফল্য শুধু দেশেই নয়, আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছে।

রোববার দুপুরে রাজশাহীর সারদায় বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে ৩৬তম বিসিএস ব্যাচের শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি এ নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জনগণের মনে পুলিশ সম্পর্কে যেন অমূলক ভীতি না থাকে সেজন্য জনগণের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে। সমাজের নারী, শিশু ও প্রবীণদের প্রতি সংবেদনশীল আচরণ করতে হবে। সমাজ থেকে অপরাধ নির্মূলে জনসম্পৃক্ততার মাধ্যমে জনবান্ধব পুলিশ গঠনে আপনাদের অগ্রপথিকের ভূমিকা পালন করতে হবে। পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় জনগণের মৌলিক অধিকার, মানবাধিকার ও আইনের শাসনকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে পুলিশ সদস্যদের প্রতি আহবান জানান তিনি।

সকাল সাড়ে ১০টায় বিশেষ হেলিকপ্টারযোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে পৌঁছান। এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ও পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী তাকে স্বাগত জানান। এরপর প্রধানমন্ত্রী মঞ্চে গিয়ে নবীন পুলিশদের সশস্ত্র সালাম গ্রহণ করেন ও খোলা জিপে চড়ে নবীন পুলিশ কর্মকর্তাদের সমাপনী কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করেন। এরপর প্রশিক্ষণের সময় বিভিন্ন বিষয়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারী সহকারী পুলিশ সুপারদের মধ্যে ট্রফি বিতরণ করেন তিনি।

পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

এম এইচ মুন্না নিজস্ব প্রতিবেদক :খানসামা উপজেলায় এসিল্যান্ড (সহকারী কমিশনার ভুমি পদটি প্রায় এক বছরের বেশি সময় ধরে শূন্য রয়েছে। এতে উপজেলার ভুমি মালিকরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছে। জানা গেছে খানসামা উপজেলা এসিল্যান্ত সহকারী কমিশনার ভুমি মোঃ সোলায়মান আলী প্রায় এক বছর পুর্বে উপজেলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পদে পদোন্নতি পেয়ে অন্যত্র বদলি হয়ে চলে যান। এর পর থেকে পদটি শূন্য। এ ক্ষেত্রে ভুমি অফিসের খাজনা খারিজ মিসকেস এগুলো পরিচালনায় বিঘ্ন ঘটছে। গুরুত্বপূর্ণ এ পদটি শূন্য থাকায় সাধারণ মনুষকে হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ মাহবুবুল ইসলাম এসিল্যান্ড পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন।গুরুত্বপূর্ণ দূটি পদে দায়িত্ব পালন করতে তাঁকে বেশ হিমসিম খেতে হয়। খানসামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার  আহমেদ মাহবুবুল ইসলাম এর মাঝেও শততা ও নিষ্ঠার সাথে গুরুত্বপূর্ণ দূটি পদেই দায়িত্ব যথাযথ ভাবে পালন করে যাচ্ছেন।

খানসামায় এসিল্যান্ড নেই এক বছর,ভোগান্তিতে ভুমি মালিকরা

সাতক্ষীরা থেকে :  সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ এবং হাসপাতালে ক্যাসিয়ার পদে চাকরি করেন মোস্তাজুল ইসলাম ৤ তার বাসা কলারোয়া উপজেলায় ৤ এই বছর সরকারি ঔষধ ও অনান্য জিনিসপএ যা আনুমানিক প্রায় কোটি টাকার সম্পদ নয়ছয় করার কারনে তিনি চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত হন ৤ কিন্তু তার কর্মকান্ড থেমে থাকে নি ৤ যথারীতি তিনি তার নির্দিষ্ট স্হানে বসে সকল কার্যক্রম সচল রেখেছেন নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ৤ যার বাস্তব প্রমান এই সদ্যতোলা ছবিতে কর্মরত অবস্হায় মোস্তাজুল ৤ এই বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন তিনি প্রতিদিন অফিসে হাজিরা দিতে আসেন কিন্তু তার জায়গায় বসে কর্মকান্ড পরিচালনা করেন না বলে এড়িয়ে যান ৤ নাম প্রকাশ না করার শর্তে অফিসের অনেক স্টাপ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন ৤ ওখানকার এক নার্স প্রশ্ন তোলেন সরকারের আদেশ অমান্য করে রেজুলেশন ছাড়া কিভাবে তিনি কার্যক্রম পরিচালনা করেন এটা তার জানা নাই ৤ এই বিষয়ে স্বাস্হ মন্ত্রির দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য বিশেষভাবে অনুৃরোধ করছি ৤

বরখাস্ত হওয়া মোস্তাজুল এখনও কর্মকান্ডে

themesbazartvsite-01713478536