করোনায় দেড় হাজার সাংবাদিককে দেয়া হচ্ছে অনুদান: তথ্যমন্ত্রী

করোনায় দেড় হাজার সাংবাদিককে দেয়া হচ্ছে অনুদান: তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক:তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, করোনায় দেড় হাজার সাংবাদিককে ১০ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়া হচ্ছে। সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে এই অনুদান প্রদানের প্রক্রিয়া প্রায় সম্পন্ন হয়েছে।

সোমবার জাতীয় সংসদে টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নোত্তরে সরকারি দলের সাংসদ শহীদুজ্জামান সরকারের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান তিনি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, মহামারি করোনায় দেশের সংবাদকর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সংবাদ সংগ্রহ ও প্রচার করছেন। তাদের বিষয়ে সরকার কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে প্রাথমিক পর্যায়ে ১ হাজার ৫০০ সাংবাদিককে এককালীন ১০ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদানের প্রক্রিয়া প্রায় সম্পন্ন করা হয়েছে। পরবর্তীতে এই অনুদান আরো সাংবাদিককে দেয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, ২০১৯-২০ অর্থবছরে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে অসুস্থ, অসচ্ছল ও দুর্ঘটনায় আহত সাংবাদিক এবং নিহত সাংবাদিক পরিবারের সদস্যদের ৩ কোটি ১০ লাখ টাকা অনুদান প্রদানেরও পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। ২০১১-১২ অর্থবছর থেকে এ পর্যন্ত ১০ কোটি ৭৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা অনুদান হিসেবে দেয়া হয়েছে।

এদিকে করোনাকালীন সময়ে সচিবালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের জন্য স্থাপিত গণমাধ্যমকেন্দ্রে হ্যান্ডওয়াশ, হ্যান্ডসানিটাইজার, টিস্যু পেপার ইত্যাদি সরবরাহ করা হচ্ছে বলেও জানান তথ্যমন্ত্রী।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বুলবুল আহমেদ নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের মালগুদাম এলাকা থেকে সিএনজি সিলিন্ডার ভর্তি ট্রাক জব্দ করেছেন আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী অফিসার। সান্তাহার পৌর শহরের উম্মুক্ত জায়গায় ঝুকিঁপূর্ন ভাবে পাইপের মাধ্যমে গ্যাস কেনাবেচা হচ্ছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল্লাহ বিন রশিদ সোমবার ভোরে সেখানে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় অবৈধ ভাবে গ্যাস বিক্রির সাথে জড়িত ব্যক্তিরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।
অবৈধ ভাবে গ্যাস বিক্রি বন্ধের জন্য গত ৫ সেপ্টেম্বর আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন সান্তাহার মালগুদাম এলাকার ব্যবসায়ি ও পরিবহন শ্রমিক সংগঠন। অভিযোগে জানা যায়, সান্তাহার পৌর এলাকার মিজানুর রহমান দীর্ঘ দিন ধরে গভীর রাতে ট্রাকে সিলিন্ডার রেখে বিভিন্ন যানবাহনে অবৈধ ভাবে গ্যাস বিক্রি করে আসছেন। বগুড়ার সিএনজি ষ্টেশন থেকে ট্রাকে করে গ্যাস সিলিন্ডার আনা হয়। একটি ট্রাকে বড় আকারের ২০ থেকে ৩০ টি সিলিন্ডার থাকে। শহর মানুষ শুন্য হলে গভীর রাতে ট্রাকের সিলিন্ডার থেকে পাইপের মাধ্যমে সিএনজি, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাসসহ অন্যান্য যানবাহনে গ্যাস বিক্রি হয়। দুরত্ব ও খরচ এড়াতে যানবাহনের মালিকরা ট্রাক থেকে গ্যাস সংগ্রহ করে থাকেন। সান্তাহার শহরের ব্যবসায়ি ও পরিবহন শ্রমিক সংগঠনের অভিযোগের ভিত্তিতে আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল্লাহ বিন রশিদ সোমবার ভোরে অভিযান পরিচালনা করে ১২টি গ্যাস ভর্তি সিলিন্ডার সহ একটি ট্রাক জব্দ করেন। এ ব্যাপারে আদমদীঘি ইউএনও আবদুল্লাহ বিন রশিদ জানান, ট্রাকসহ সিলিন্ডার থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে এবং বিষয়টি বগুড়া পরিবেশ অধিদপ্তরকে অবহিত করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের করা হবে।

বগুড়ার সান্তাহারে গ্যাস সিলিন্ডার ভর্তি ট্রাক জব্দ করলেন ইউএনও

themesbazartvsite-01713478536