মালয়েশিয়া বৈধতার জাল বিবৃতি ভাইরাল বিশ্ব সোশ্যাল মিডিয়া

মালয়েশিয়া বৈধতার জাল বিবৃতি ভাইরাল বিশ্ব সোশ্যাল মিডিয়া

এম এ  আবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি, অবৈধ অভিবাসীদের জন্য  বৈধ করণ ঘোষণা আকাশ কুশুম সমান। নিভো নিভো প্রদীপ টা হঠাৎ করে জ্বলে উঠে প্রবাসীদের মনে।  তবে যদি হয় মিথ্যা বিবৃতি হৃদয়ে চলে রক্ত হরণ। মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতার ঘোষণার আগেই জাল বিবৃতি ভাইরাল  বিশ্ব  সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে অনন্ত ২০ টি দেশের শ্রমিক কাজ করছে।  এই জাল বিবৃতি ভাইরালের বিষয়ে মালয়েশিয়া  স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভেরিফাই  ফেইসবুক পেইজে  এটাকে গুজব বলে সবাইকে সতর্ক হতে বলা হয়েছে।
সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া জাল বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে, চলতি বছরের ১৫ জুলাই থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত অবৈধ অভিবাসীদের বৈধকরণ প্রকল্প চালু হতে পারে । এ বিষয়ে সে দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ১৯ জুন এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, এখনও মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত অবৈধ অভিবাসীদের জন্য বৈধ প্রকল্প চালু হয়নি। এ ধরনের কোনো ঘোষণা দেয়নি সে দেশের সরকার।
উল্লেখ্য সম্প্রতি সে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতা দেওয়ার ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা করেন। তিনি উল্লেখ করেন, করোনা পরিস্থিতি ও দেশের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে অবৈধভাবে অবস্থানরত বিদেশিদের বৈধতার বিষয় প্রাধান্য পায় কিনা তা মন্ত্রী সভার বৈঠকে আলোচনা চলছে মাএ। যদি অবৈধদের বৈধতা দেওয়া হয় তাহলে ডিটেনশন ক্যাম্প ও জেলে আটককদেরও বৈধতার সুযোগ দেওয়া উচিত বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা । যদি আমাদের দেশের মালিকরা চায়, তাহলে সেখান থেকেও নিতে পারবে শ্রমিক । তিনি আরও বলেন, এ বিষয়ে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও ইমিগ্রেশন বিভাগের সঙ্গে আলোচনা চলছে।
মালয়েশিয়া জাতীয় গণমাধ্যম ও নিউজ এজেন্সিতে ফলাও করে নিউজ প্রকাশ করায় মালয়েশিয়া সহ  বিশ্ব সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পরে রাতারাতি  বৈধতার নিউজ টি। বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, কম্বোডিয়া, লাউঞ্জ, ফিলিপাইন, সহ আরব কান্ট্রির বেশ কয়েকটি দেশ।  এই ধরণের ফেইক নিউজ প্রকাশ না করার জন্য  আহবান করেন। মালয়েশিয়া অবস্থানরত সকল বিদেশি নাগরিক জাতীয় গণমাধ্যম ও নিউজ এজেন্সির খবর গুলো গুরুত্ব সহকারে দেখে।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazartvsite-01713478536