চুয়াডাঙ্গায় স্বর্ণ পাচার মামলার আসামি রাকিবকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

চুয়াডাঙ্গায় স্বর্ণ পাচার মামলার আসামি রাকিবকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

 আল মামুন সোহাগ চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগরের স্বর্ণ পাচার মামলার আসামি রাকিব হোসেন নামের একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পর আসামিকে পুলিশি পাহারায় চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে নেওয়া হয়। সাজাপ্রাপ্ত রাকিব হোসেন জীবননগর উপজেলার ধোপাখালী গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি সকালে রাকিব হোসেন বাই সাইকেলযোগে জীবননগর সীমান্তের গোয়ালপাড়া দিয়ে স্বর্ণ পাচার করে নিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় ৫৮ বিজিবির গয়েশপুর বিত্তপির একটি টহল দল গোয়ালপাড়া সীমান্তের কাছে রাকিবকে আটক করে। তার দুই পায়ের ভেতরে লুকিয়ে রাখা এক কেজি সাড়ে ৮ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। রাতেই বিজিবির গয়েশপুর বিত্তপির নায়েক সুবেদার আব্দুস সাত্তার বাদী হয়ে জীবননগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জীবননগর থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল মামুন একজনকে অভিযুক্ত করে ২০১৮ সালের ১৬ এপ্রিল আদালতে চার্জশিট প্রদান করেন। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রবিউল ইসলাম ছয় জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazartvsite-01713478536