রামপালে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ ও চাঁদাবাজদের হাত থেকে পরিত্রান দাবীতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ কর্মসূচী ও স্মারক

রামপালে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ ও চাঁদাবাজদের হাত থেকে পরিত্রান দাবীতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ কর্মসূচী ও স্মারক

অনিক খান,রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধি: রামপাল উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাংবাদিক হাফিজুর রহমান ও ছাত্রলীগকে জড়িয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের জের ধরে উপজেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ সমাবেশ ও স্বারকলিপি পেশ করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় রামপাল থানার মোড়ে উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ সমাবেশ করে। ছাত্রলীগ কতৃক এ কর্মসূচী আয়োজন করা হলে এতে এলাকায় অত্যাচরের স্বীকার বিভিন্ন শ্রেনী ও পেশার মানুষ বিক্ষোভ কর্মসূচীতে অংশ নেয়ায় এটি সাধারন মানুষের কর্মসূচীতে পরিনত হয়। সমাবেশ শেষে বিক্ষুব্ধ ছাত্র জনতা এক সাথে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তুষার কুমার পাল ও উপজেলা চেয়ারম্যান বরাবরে স্মারক লিপি প্রদান করে।
বিক্ষোভ সমাবেশ ও স্মারক লিপি সূত্রে জানা গেছে যে, রামপালের কিছু লোক সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে এলাকার বিভিন্ন মানুষকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করে আসছে। এরা হল উপজেলার বড়দিয়া গ্রামের মৃত আঃ আজিজ’র পুত্র এম.এ.সবুর রানা ও তার ভাই মোঃ হাফিজুর রহমান, হুড়কা ইউনিয়ের হড়কা এলাকার গঙ্গাধর মজুমদারের পুত্র সুজন মজুমদার, রামপাল সদর ইউনিয়নের আঃ বারিক মল্লিক’র পুত্র মোতাহার মল্লিক, উজলকুড় ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের মারুফ হাওলাদার’র পুত্র পুত্র এইচ আমিনুল হক নান্টু, পেড়ীখালী ইউনিয়নের তরিকুল ও নাজমুল ইসলাম।

এদের মধ্যে সবুর রানা দৈনিক লোক সমাজ পত্রিকায়, সুজন মজুমদার দৈনিক যুগান্তর পত্রিকায়, মোতাহার মল্লিক দৈনিক আজকের তথ্য পত্রিকায় ও আমার একুশ পত্রিকায় ,আমিনুল হক নান্টু দৈনিক প্রবাহ ও চ্যানেল একাত্তর , নাজমুল ইসলাম আনন্দ টিভি, অন্যানরা স্থানীয় পত্রিকার প্রতিনিধি পরিচয় দিয়ে থাকে। সুজন, নান্টু সহ অনেকের কোন শিক্ষাগত যোগ্যতা নেই এবং তারা এলাকায় বখাটে বলে পরিচিত। এরা সংঘবদ্ধ ভাবে সাধারন লোকজনদের সংবাদ প্রকাশের ভয় দিয়ে টাকা দাবী করে । টাকা না দিলে মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করে। স্মারক লিপি সুত্রে জানা গেছে যে, দৈনিক লোক সমাজ পত্রিকার প্রতিনিধি সবুর রানা সুন্দরবনের জলদস্যু ও অস্ত্র মামলায় ৯ বছরের সাজা প্রাপ্ত আসামী। বর্তমানে তার বিরুদ্ধে বাগেরহাটের বিজ্ঞ আদালতে একটি চাঁদাবাজী মামলা চলমান রয়েছে যার নং এসসি ০৯/১১। মামলাটি করেন মল্লিকেরবেড় নিবাসী লাকি বেগম । নান্টু একজন চিহ্নিত মাদক সেবী ও মাদক ব্যবসায়ী। এছাড়া চাঁদা দাবী করায় সুজন মজুমদার, সবুর রানা, মোতাহার মল্লিক ও নান্টু সহ কয়েক জনের বিরুদ্ধে রামপাল সদর ইউনিয়নের শ্রীফলতলা এলাকার বিামন কুন্ডু নামে এক ব্যাক্তি ২৪ এপ্রিল ,২০১৮ ইং তারিখে র‌্যাব-৬ বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করে এবং এ সংক্রান্ত সংবাদ ২৮ এপ্রিল ,২০১৮ দৈনিক দেশ সংযোগ সহ কয়েকটি আঞ্চলিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে ১০/১১/২০১৭ ইং তারিখে হুড়কা এলাকার সুনিল মন্ডলের কাছে চাঁদা চাওয়ায় সে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর আরো একটি অভিযোগ দায়ের করে এবং এ সংক্রান্ত সংবাদ খুলনা অঞ্চলের বহল প্রচারিত দৈনিক পূবাঞ্চল পত্রিকায় ২১মে, ২০১৮ ইং তারিখে প্রকাশিত হয়। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে চাঁদা চাওয়ার অভিযোগে ৩০/৪/২০১৮ ইং তারিখে আরো একটি অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে দায়ের করা হয়। এ চক্রের বিরুদ্ধে এলাকায় এ রকম অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। এরা এলাকার ব্যবসায়ী ও নিরীহ মানুষের কাছ থেকে মাসিক মাসোয়ারা আদায় করে থাকে। প্রতিবাদ করলে তার বিরুদ্ধে সাংবাদিক দিয়ে সংবাদ প্রকাশের ভয় দেখানো হয়। এ সকল অনৈতিক কাজের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করায় তারা মোঃ হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে ক্ষিপ্ত হয় এবং সুযোগ খুজতে থাকে এবং তাকে জড়িয়ে হামলার নাটক সাজিয়ে ২২জুলাই লোকসমাজ ও দৈনিক যুগান্ত পত্রিকা সহ কয়েকটি অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ছাত্র জনতা এক হয়ে এ বিক্ষোভ কর্মসূচীর আয়োজন করে। রামপাল উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সেখ সাদি’র সভাপেিত্ব আয়োজিত এ বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন থানা ছাত্রলীগের সহসভপতি কল্লোল বিশ্বাস , মোঃ গোলাম ইয়াছিন রাজু, ছাত্রলীগ নেতা মোঃ মানিক হাসান, মোঃ নেওয়াজ শরীফ, মোঃ হেলাল সেখ, আয়াজ শিকারী প্রমুখ।
বক্তব্যে তারা বলেন যে, সবুর, নান্টু, সুজন, মোতাহর, হাফিজ সহ কিছু চিহ্নিত চাঁদাবাজদের হাতে পত্রিকা কি ভাবে সাংবাদিকের কার্ড তুলে দেয় ? বক্তারা বলেন যে, যদি সংশ্লিষ্ট পত্রিকা গুলো রামপালে এসে সত্য ঘটনা তদন্ত করুক এবং সত্যতার আলোকে সিদ্ধান্ত নিক। তা না হলে সংশ্লিষ্ট পত্রিকা গুলো রামপালের জনগন বর্জন করবে বলে ও বক্তারা জানান। তারা আরো বলেন যে, চাঁদাবাজ নামধারী ঐ সমস্ত লোকেরা সাংবাদিকতা ও পত্রিকা গুলোকে কলংক করছে। বক্তারা আশা প্রকাশ করে বলেন যে, অতি সত্তর পত্রিকা কতৃপক্ষ তদন্ত করে চাঁদাবাজ নামধারী সাংবাদিকদের হাত থেকে মুক্ত করে রামপালের সাধারন মানুষদের পাশে দাড়াবে।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazartvsite-01713478536