রাইড শেয়ারে যাত্রী নিয়ে প্রাণ হারান মিলন

রাইড শেয়ারে যাত্রী নিয়ে প্রাণ হারান মিলন

অনলাইন ডেস্ক:মাত্র ৫০ টাকা ভাড়ায় নুর উদ্দিন ওরফে সুমন নামের এক যাত্রীকে নিয়ে গুলিস্তান যাচ্ছিলেন রাইড শেয়ারে মোটরসাইকেল চালক মো. মিলন (৩৫)। কিন্তু যাত্রীবেশী এই ব্যক্তি মালিবাগ-মৌচাক উড়ালসড়কে মিলনের মোটরসাইকেল কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নিতে ব্যর্থ হয়ে অ্যান্টি কাটার দিয়ে মিলনের গলায় উপর্যুপরি আঘাত করেন নুর উদ্দিন। এই আঘাতে প্রাণ হারান মিলন। তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় গতকাল রোববার দিবাগত রাত তিনটার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুর এলাকা থেকে এই হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত নুর উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। এ সময় নুর উদ্দিনের কাছ থেকে মিলনের ব্যবহৃত একটি স্যামসাং জে-৫ মোবাইল সেট, দুটি হেলমেট এবং ডায়াং ১৫০ সিসি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

 

আজ দুপুর সাড়ে ১২টায় এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) মো. আবদুল বাতেন।

মিন্টো রোডে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এই ব্রিফিংয়ে আবদুল বাতেন বলেন, গত ২৬ আগস্ট রাত তিনটার দিকে পাঠাও চালক মিলন এক যাত্রীকে মালিবাগ চৌধুরীপাড়ায় নামিয়ে দেন। এর পর মালিবাগ-মৌচাক উড়ালসড়কে ওঠার সময় আবুল হোটেলের ঢালে নুর উদ্দিন সিগন্যাল দিয়ে মিলনের মোটরসাইকেলটি থামান। তিনি গুলিস্তান যাবেন বলে ৫০ টাকায় মিলনের সঙ্গে ভাড়া ঠিক করেন। উড়ালসড়কে সবচেয়ে ওপরে পৌঁছালে মিলনকে মোটরসাইকেল থামাতে বলেন নুর উদ্দিন। মোটরসাইকেল থামানোর পর নুর উদ্দিন নিজেই মিলনকে মোটরসাইকেল চালানোর কথা বলেন। এতে রাজি না হওয়ায় মিলনের সঙ্গে নুর উদ্দিনের ধ্বস্তাধ্বস্তি হয়। একপর্যায়ে নুর উদ্দিন অ্যান্টি কাটার দিয়ে মিলনের গলায় উপর্যুপরি আঘাত করে মোটরসাইকেল ও মোবাইল নিয়ে চলে যান। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এসব ঘটনা ডিবিকে বলেছেন নুর উদ্দিন।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazartvsite-01713478536