আবাসন ব্যবসার আড়ালে মদ বিক্রি গুলশানে প্রতিষ্ঠান থেকে ১৪৯ বোতল মদসহ ব্যবসায়ী গ্রেফতার

ঢাকা
শেয়ার করুন

নিউজ ২৬ রিপোর্ট:রাজধানীর গুলশানে কালাম রিয়েল এস্টেট নামে একটি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান অবৈধ বিদেশি মদ জব্দ করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর।এ ঘটনায় ওই রিয়েল এস্টেটের মালিকের ছেলে ফয়সাল চৌধুরী ও তার দুই গাড়িচালককে গ্রেফতার করেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর গুলশান-১ নম্বর সার্কেলের ১২৮ নম্বর রোডের ৬ নম্বর বাড়ির ৫ম তলার ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে ১৪৯ বোতল বিদেশি মদ জব্দ করে।মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের ঢাকা মেট্রো (উত্তর) উপ-পরিচালক রাশেদুজ্জামান জানান, কালাম রিয়েল এস্টেট নামক একটি প্রতিষ্ঠানের মালিকের ছেলে ফয়সাল চৌধুরী আবাসন ব্যবসার কথা বলে গুলশান-১ নম্বরের একটি বাড়ি ভাড়া নেন। সেই বাড়িতে সবার আড়ালে মদ সরবরাহের ব্যবসা করে আসছিলেন দীর্ঘদিন ধরে। এসব তথ্যের ভিত্তিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে একটি টিম গুলশানের ওই প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালায়।

উপ-পরিচালক রাশেদুজ্জামান আরো বলেন, আবাসন ব্যবসার আড়ালে ফয়সাল দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে মাদকের ব্যবসা করে আসছিলেন। তার বাসার আলমারি থেকে শুরু করে সব জায়গায় মদের বোতল পাওয়া গেছে। তারা এসব মদ কোথা থেকে সংগ্রহ করত কিংবা কতদিন ধরে সংগ্রহ করছে, তারা কাদের কাছে পৌঁছে দিত তা জিজ্ঞাসাবাদে জানা সম্ভব হবে। এছাড়া ওই ফ্ল্যাট ছাড়াও গুলশানের ১১৩ নম্বর রোডের কালাম রিয়েল এস্টেটের আরো একটি অফিস থেকেও বিদেশি মদ জব্দ করা হয়। এ সময় সেখান থেকে দুটি গাড়িও জব্দ করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কর্মকর্তারা। ওই দুই গাড়ির চালক ইব্রাহিম ও আলমকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি বলেন, ফয়সালের কাছে ২০০৯ সালে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মদ পানের লাইসেন্স থাকলেও পরে নবায়ন করা হয়নি। আর মদ সেবনের লাইসেন্স থাকলেও ওই সংখ্যক মদ মজুত কিংবা সংরক্ষণ করার আইনগত কোনো বৈধতা নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *